ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী’র অ্যাসোসিও সদর দপ্তর এবং এমডেক পরিদর্শন।


ঢাকা: ২০ সেপ্টেম্বর, বুধবার: ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী বেগম তারানা হালিম, এমপি গত ১৮ সেপ্টেম্বর (সোমবার) এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তথ্যপ্রযুক্তি  র্শীষ সংগঠন এশিয়ান-ওসেনিয়ান কম্পিউটিং ইন্ডাস্ট্রি অর্গানাইজেশন (অ্যাসোসিও)-এর আমন্ত্রণে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে অবস্থতি উক্ত সংগঠনের সদর দপ্তর পরিদর্শন করেন। সেখানে তাকে অভ্যর্থনা  জানান অ্যাসোসিও চেয়ারম্যান ডেভিড  ওং ন্যান ফে এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিতে মালয়েশিয়ার জাতীয় সংগঠন পিকম-এর চেয়ারম্যান চিন চী সিওং। এ সময় প্রতিমন্ত্রী্র সফরসঙ্গী হিসেবে  সেখানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের কম্পিউটার সমিতির সভাপতি আলী আশফাক, সহ-সভাপতি ইউসুফ আলী শামীম, মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার এবং পরিচালক ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক  সমন্বয়ক শহিদ-উল-মুনীর।

সফরসঙ্গীগণসহ প্রতিমন্ত্রী বেগম তারানা হালিম অ্যাসোসিও চেয়ারম্যান ডেভিড ওং ন্যান ফে এবং  পিকম-এর চেয়ারম্যান চিন চী সিওং-এর সাথে এক আলোচনা সভায় মিলিত হন। আলোচনায় মুখ্যত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং সংশ্লষ্টি বিষয়াবলী স্থান পায়। এসবের মধ্যে রয়েছে   ক্রস-বর্ডার পেমেন্ট গেটওয়ের মাধ্যমে বৈধ পথে আর্থিক লেনদেনসহ ই-কর্মাস এবং স্মার্ট  সিটি স্থাপন। আলোচনাকালে প্রতিমন্ত্রীর নিকট থেকে অ্যাসোসিও এবং পিকম  নেতৃদ্বয় বাংলাদেশ পোস্ট অফিস কর্তৃক  প্রবর্তিত  ‘পোস্টাল ক্যাশ কার্ড’ সর্ম্পকে বিস্তারিত অবহিত  হয়ে এই পদ্ধতি মালয়েশিয়া এবং এ অঞ্চলের  অন্যান্য দেশে  প্রবর্তনের ব্যাপক আগ্রহ প্রকাশ করেন। 


আলোচনা পর্ব  শেষে অ্যাসোসিও  চেয়ারম্যান  ডেভিড ওং ন্যান ফে এ বছর বাংলাদেশ পোস্ট অফিস কর্তৃক  অর্জিত অ্যাসোসিও  ‘ ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওর্য়াড’ প্রতিমন্ত্রী বেগম তারানা হালিমের নিকট  অর্পণ  করেন। উল্লেখ্য, দেশব্যাপী ‘পোস্টাল ক্যাশ কার্ড’ প্রবর্তনের জন্য বাংলাদেশ পোস্ট অফিস অ্যাসোসিও কর্তৃক প্রবর্তিত  মর্যাদাবান এই অনন্য পুরষ্কারে  ভূষিত হয়।


অ্যাসোসিও সদর দপ্তর পরিদর্শন শেষে সফরসঙ্গীদেরকে সাথে নিয়ে প্রতিমন্ত্রী বেগম তারানা হালিম বিশ্বকে  সাড়া জাগানো মালয়েশিয়ার স্মার্ট সিটি  সাইবারজায়ায় অবস্খিত  মালয়েশিয়ার ডিজিটাল  ইকোনমি কাউন্সিল (এমডেক) দপ্তর পরিদর্শন  করেন। সেখানে তিনি এমডেকের  ঊর্ধ্বতন  কর্মকর্তাদের  সাথে ডিজিটাল  ইকোনমি সম্পর্কিত  আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। আলোচনাকালে প্রতিমন্ত্রী  বাংলাদেশের উৎক্ষেপনিও ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটলোইট’ থেকে তরঙ্গ বরাদ্দ নেয়ার আহ্বান জানালে এমডেক কর্তৃপক্ষ তাতে আগ্রহভরে ইতিবাচক  সাড়া প্রদান করনে।